উডের ডেসপ্যাচ সম্পর্কে একটি টীকা লেখো

Ajit Rajbanshi
0

a-detailed-note-on-woods-despatch-in-bengali

মাধ্যমিক ইতিহাস দ্বিতীয় অধ্যায় : সংস্কার বৈশিষ্ট্য ও পর্যালোচনা অধ্যায়ের 4 মার্কের প্রশ্নের উওর হিসাবে আজকে আমরা 'উডের নির্দেশনামা বা উডের প্রতিবেদন কী? উডের ডেসপ্যাচ এর সুপারিশ গুলি কী কী? এবং উডের ডেসপ্যাচের গুরুত্ব কী' এর উওর শেয়ার করবো।


উডের নির্দেশনামা কী? বা উডের ডেসপ্যাচ বলতে কী বোঝো? 

ভূমিকা : ১৮৪৪ খ্রিস্টাব্দে লর্ড হার্ডিঞ্জ এক ঘোষণায় এটা বলেন যে,এবার থেকে ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির অধীনে সরকারি চাকরিতে শুধুমাত্র তাদেরকেই চাকরি দেওয়া হবে,যারা ইংরেজি শিক্ষায় শিক্ষিত হবে অর্থাৎ এক কথায় যারা ইংরেজি জানে। এই ঘোষণার পর ১৮৫৪ খ্রিস্টাব্দে বোর্ড অফ কন্ট্রোলের সভাপতি স্যার চার্লস উড - তার একটি নির্দেশনা প্রকাশ করেন, যা উডের ডেসপ্যাচ বা  উডের নির্দেশনামা বা উডের প্রতিবেদন নামে পরিচিত।


উডের ডেসপ্যাচ বা উডের নির্দেশনামা : 

ভারতবর্ষে শিক্ষার ক্ষেত্রে বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করার জন্য এবং ভারতে ইংরেজি শিক্ষার প্রসারকে গুরুত্ব দিয়ে ১৮৫৪ খ্রিস্টাব্দে বোর্ড অফ কন্ট্রোল সভাপতি স্যার চার্লস উড যে নির্দেশনামা জারি করেছিলেন, তাকে উডের ডেসপ্যাচ বা নির্দেশনামা বলা হয়। 


উডের ডেসপ্যাচ এর সুপারিশ গুলি কী কী?

উডের নির্দেশ নামা ভারতীয় শিক্ষার ক্ষেত্রে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ছিল। উডের নির্দেশনামায় স্যার চার্লস উড সরকারের কাছে ভারতের শিক্ষার উন্নতির জন্য বেশ কিছু সুপারিশ করেন।  যেমন - 

▪ ভারতবর্ষের প্রত্যেকটি প্রেসিডেন্সি শহর,যেমন -কলকাতান মুম্বাই এবং মাদ্রাজে একটি করে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করতে হবে।

▪ দ্বিতীয়ত ন গণশিক্ষা,নারীশিক্ষা মাতৃভাষার উন্নয়ন এবং শিক্ষক- শিক্ষণ ব্যবস্থার প্রবর্তন করতে হবে। 

▪ প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শনের উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। 

▪ একটি পৃথক শিক্ষা দপ্তর গঠন করতে হবে।

▪ সমস্ত বিদ্যালয় গুলিকে সরকারি অনুদান প্রদান করতে হবে।


উডের ডেসপ্যাচ এর গুরুত্ব কী? শিক্ষা বিস্তারে চার্লস উডের ভূমিকা

উডের ডেসপ্যাচ বা উডের নির্দেশনামা কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ফলাফল : বোর্ড অফ কন্ট্রোলের সভাপতি স্যার চার্লস উড,তার নির্দেশনামা সরকারের কাছে যে সমস্ত সুপারিশ করেছিল,তার কয়েকটি মেনে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে। যেমন -

▪ প্রথমতঃ সরকার উডের নির্দেশনামা সুপারিশ অনুসারে সরকার ১৮৫৫ খ্রিষ্টাব্দের সরকারি শিক্ষাবিভাগ বিভাগ খোলে। 

▪ দ্বিতীয়তঃ উডের নির্দেশনামা অনুযায়ী আঠারোশ ১৮৫৬ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা,মাদ্রাসা এবং বোম্বাইয়ে একটি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। 

▪ তৃতীয়তঃ বিদ্যালয়কে সরকারি অনুদাদ প্রদান করা হয়। এভাবেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ফলে ভারতে পাশ্চাত্য শিক্ষার প্রসার দ্রুত প্রসার ঘটতে থাকে।

ধন্যবাদ।।

Tags : উডের ডেসপ্যাচ বা উডের নির্দেশনামা বা উডের প্রতিবেদন কী? |  উডের ডেসপ্যাচ কবে প্রকাশ করা হয়? | উডের নির্দেশনামা কে প্রকাশ করেন?| উডের ডেসপ্যাচ এর সুপারিশ গুলি কী কী? | উডের ডেসপ্যাচের গুরুত্ব কী 


  • Newer

    উডের ডেসপ্যাচ সম্পর্কে একটি টীকা লেখো

Post a Comment

0Comments

Post a Comment (0)